২৯শে আগস্ট, ২০১৬ ইং, সোমবার ১৪ই ভাদ্র, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ


তুরস্কের পুলিশ সদরদপ্তরে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৯, আহত ৬৪ (ভিডিও)


Amaderbrahmanbaria.com : - ২৬.০৮.২০১৬

turkey_cizreআন্তর্জাতিক ডেস্ক :তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের সিজারে শহরের পুলিশ সদর দপ্তরে একটি থানায় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।
এতে অন্তত ৯ জন নিহত হয়েছে ও ৬৪ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন গণমাধ্যম সিটি.এম।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা স্থানীয়দের ছবিতে দেখা যাচ্ছে, পুলিশ সদর দফতরের ভবনটি ধসে পড়েছে।
সিরনাক প্রদেশের চিজরি শহরের থানায় লক্ষ্য করে গাড়ী বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় দুর্বৃত্তরা। থানার ৫০ মিটার দূরে বিস্ফোরণটি ঘটেছে। উদ্ধারের জন্য ১২ টি এ্যাম্বুলেন্স ও দুইটি হেলিকপ্টার পাঠানো হয়েছে বলে তুরস্কের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।
এদিকে, বিবিসি এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হামলার পেছনে কারা জড়িত তা স্পষ্ট না হলেও দেশটির গণমাধ্যম হামলায় নিষিদ্ধঘোষিত কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) দোষারোপ করছে।
তুরস্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পিকেকের লড়াইয়ের সময় গত কয়েকমাস আগেও এই শহরটিতে বেশ কয়েকবার কারফিউ জারি করা হয়েছিল। তুরস্কের টেলিভিশন এনটিভি প্রচারিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে, আক্রান্ত সিরনাক প্রদেশের ওই পুলিশ সদর দফতর থেকে প্রচুর ধোঁয়া উড়ছে। আহতদের উদ্ধারে ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে অ্যাম্বুলেন্সের বহর ছুটছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়া এবং ইরাক সীমান্তের সিরনাকে কুর্দিপন্থী অনেক নাগরিকের বসবাস রয়েছে।
রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদোলু বলছে, গত জুলাই মাসে সরকার ও কুর্দি বিদ্রোহীদের যুদ্দবিরতি চুক্তি ভেস্তে যাওয়ার পর ওই অঞ্চলে প্রতিনিয়ত হামলা চালিয়েছে আসছে পিকেকে। সর্বশেষ এই হামলায়ও পিকেকের দিকে আঙুল তুলেছে আনাদোলু।
ইউরোপীয় ইউনিয়ন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্ক সরকার কুর্দিপন্থী বিদ্রোহী পিকেকেদকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে কালো তালিকাভূক্ত করেছে। ১৯৮৪ সালে বিদ্রোহ শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত ৪০ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। এদের মধ্যে পিকেকেপন্থীদের সংখ্যাই বেশি।
সূত্র: এপি ও আনাডুলু এজেন্সি, রয়টার্স ও গার্ডিয়ান থেকে





Loading...


প্রকাশকঃ মোঃ আশ্রাফুর রহমান রাসেল
সম্পাদকঃ জাবেদ রহিম বিজন
চেয়ারম্যান : আলহাজ্ব নুরুজ্জামান
ঠিকানা : ৬০৩ ফুলবাড়িয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।
email : [email protected] (news)
Phone: +880851 62307
+8801963094563


close