রবিবার, ১১ই জুন, ২০১৭ ইং ২৮শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

নগ্ন হয়ে যোগ দিন আমাদের সঙ্গে

AmaderBrahmanbaria.COM
আগস্ট ২, ২০১৫
news-image

---

কানাডার অন্টারিও অঙ্গরাজ্যের ওয়াটারলুতে নগ্নবক্ষা নারীরা প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। নগ্ন বক্ষ হয়ে সাইকেল চালানোর অভিযোগে তিন বোনকে পুলিশ বাধা দেয়ার ঘটনার প্রতিবাদ জানাচ্ছিল তারা।
শনিবার ওই সমাবেশে তাদের অনেকের হাতেই ছিল নানা সেøাগান লেখা ফেস্টুন। এগুলোর কোন কোনটিতে লেখা ছিল, ‘নগ্নতার অর্থ যৌনতা নয়’।
১৯৯৬ সালে আদালতের দেয়া এক রায়ের বলে অন্টারিওতে নগ্ন বক্ষ হয়ে ঘোরাফেরা করা আইনসিদ্ধ। কিন্তু যে তিন জন বোন পুলিশি বাধার সম্মুখীন হয়েছিল, তাদের বক্তব্য,

waterloo-rally.jpg.size_.xxlarge.letterbox-400x267

‘দিনটি ছিল খুবই গরম, তাই আমরা শার্ট খুলে ফেলেছিলাম’।
এই তিন বোনের একজন আলিশা ব্রিলা নামে পরিচিতি পাওয়া নামী একজন সঙ্গীত শিল্পী।
বিক্ষোভকারীদের কারো কারো হাতে লেখা প্লাকার্ডে আহবান জানানো হয় ‘বেয়ার উইথ আস’ অর্থাৎ নগ্ন হয়ে আমাদের সঙ্গে যোগ দিন। তারা দাবি করেন তাদের এ প্রতিবাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে কোনো নারী যদি নগ্নবক্ষা হয়ে চলতে চায় তাহলে তা তার অধিকার বটে।
স্থানীয় মিডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রতিবাদকারী নারীরা জানায়, কোনো নারী নগ্নবক্ষা হয়ে চলার অর্থ নগ্নতা বা যৌনতা নয়, বরং তা শুধুই তার শরীর। এর আগে যে তিন নারী নগ্নবক্ষা হয়ে সাইকেলে ঘুরে বেড়াচ্ছিল তারা হচ্ছে জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী আলিশা ব্রিলা, নাদিয়া মোহামেদ ও তামিরা মোহামেদ। এসময় এক পুলিশ কর্মকর্তা তাদের সার্ট পরিধান করতে বলেন এবং জানান, এটা আইন। তবে ওয়াটার লু পুলিশ বলছে, কেনো ওই পুলিশ কর্মকর্তা তিন নগ্নবক্ষা নারীকে বাধা দিয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হবে।
পুলিশ কর্মকর্তা মাইক হ্যাফনার বলেন, আইনে আছে যদি কেউ নগ্নবক্ষা হয়ে চলতে চায় তাহলে তা সে করতেই পারে। ১৯৯৬ সালে আদালত এ অধিকার দিয়েছে। তার ৫ বছর আগে গুয়েন জ্যাকব নামে ১৯ বছরের এক তরুণী গরমে সার্ট খুলে রাস্তায় চলাফেরার পর বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়।