রবিবার, ৩রা জুন, ২০১৮ ইং ২০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শরীরের ১৫টি নীরব লক্ষণ অবহেলা করবেন না

images-18ডেস্ক রিপোর্ট : আমরা অনেক সময় শরীরের নানা নীরব লক্ষণ এড়িয়ে যাই যা অনেক সময় বড় ধরনের বিপদের কারণ হতে পারে। এছাড়া অনেক জটিল রোগের প্রাথমিক লক্ষণও আমরা এড়িয়ে যাই। যদি কখনো আপনার অনুভূত হয় শরীরের আকস্মিক পরিবর্তন তখন অবহেলা করবেন না। যে পরিবর্তনসমূহ অবহেলা করবেন না তা হচ্ছে, আকস্মিক ওজন হ্রাস, দাঁতের সমস্যা হওয়া, স্কিন র্যাশ যা থেকে চুলকানো হয়, বাথরুমের সমস্যা, পায়ুপথে রক্ত ক্ষরণ, হাতের লেখার সমস্যা, হঠাৎ রেগে যাওয়া, দীর্ঘস্থায়ী খুশখুশে কাশি, নাক ডাকা, শরীরের কোনো স্থান হতে অনভিপ্রেত রক্তক্ষরণ, শারীরিক ক্ষমতা হ্রাস, মাঢ়ির প্রদাহ, বার বার মলত্যাগ, প্রিয়জনের নাম মনে রাখতে না পারা, আর্থিক বিষয়াদি ম্যানেজ করতে সমস্যায় পড়া ইত্যাদি।
এ সমস্যাগুলোর এক বা একাধিক এক সঙ্গে থাকতে পারে। যেমন-আকস্মিক ওজন হ্রাস, পাকস্থলী, গলনালী, প্যানক্রিয়াস অথবা ফুসফুসের ক্যান্সারের লক্ষণ। এব্যাপারে আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির প্রধান ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা ড: রিসার্ড ওয়েন্ডারের মতে কোনো ধরনের ডায়েটিং অথবা এক্সারসাইজ ছাড়া শরীরের ওজন ১০ কেজি কমে গেলে অবশ্যই ক্যান্সারের বিষয়টি মাথায় আনতে হবে।
যাদের দীর্ঘ মেয়াদী গলায় প্রদাহ, কাশি, আন এক্সপ্লেইন্ড হুইজিং, অথবা মুখে কোনো কিছুর তীব্র গন্ধ পাওয়া গলনালীর ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ। বারবার কোষ্ঠ কাঠিন্য অথবা ডায়রিয়া ক্লোন ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ। হঠাৎ হাতের লেখায় পরিবর্তন বা লেখার সময় হাত কাঁপতে থাকলে পারকিনসন্স রোগের প্রাথমিক লক্ষণ হিসাবে ধরা হয়। তবে অনেক ক্ষেত্রে বয়সজনিত কারণে হাতের লেখা বা সিগনেসার সমস্যা হতে পারে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এসব সমস্যা চিহ্নিত করা যায়। সহজে সমাধান করা যায় এমন আর্থিক বিষয়গুলোর নিরসনে জটিলতা তৈরি করা স্মৃতিভ্রম বা আলঝেইমারস রোগের লক্ষণ ইত্যাদি। তাই বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরের যে কোনো ধরনের রোগের লক্ষণ কোনো ভাবেই অবহেলা করা উচিত নয়।
লেখক : চুলপড়া, এলার্জি, চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ, ইত্তেফাক

Print Friendly, PDF & Email