রবিবার, ৩রা জুন, ২০১৮ ইং ২০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পাঁচ ডলারে ট্রাম্পকে কিল-ঘুষি-লাথি

a9fb1c30351a645fc6b0c627eec5a3aa-14আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ধনকুবের ডোনাল্ড ট্রাম্প নিউইয়র্কের আদি বাসিন্দা হলে কী হবে এই শহরে তাঁকে পছন্দ করে এমন মানুষের সংখ্যা খুব বেশি নয়। অবৈধ অভিবাসী, মুসলমান ও আফ্রিকান-আমেরিকানদের নামে কটূক্তি করে তিনি এখন এতই নিন্দার পাত্র যে, একজন পথশিল্পী (স্ট্রিট পারফর্মার) নিজে ডোনাল্ড ট্রাম্প সেজে তাঁকে ইচ্ছেমতো কিল-ঘুষি ও লাথি দিতে সাদর আমন্ত্রণ জানাচ্ছে। তবে সে জন্য অল্পবিস্তর কাঁচা টাকা খরচা করতে হচ্ছে।

এই পথশিল্পীর নাম কালান শেরাড। তিনি অবশ্য নিজেকে রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে পরিচয় দিতেই ভালোবাসেন। ট্রাম্পের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে আপত্তি প্রকাশের জন্য কালান নিজেই ট্রাম্প সেজে ম্যানহাটনে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ান। যেকোনো ব্যক্তি চাইলে ট্রাম্পরূপী কালানকে কষে এক লাথি বসাতে পারেন। এ জন্য দিতে হবে পাঁচ ডলার।

ট্রাম্প বিরোধী আরেক শিল্পীর নাম বিশ্বজিৎ সিং। নামজাদা আঁকিয়ে এই শিখ ধর্মাবলম্বী ট্রাম্পের নানা ব্যঙ্গ কার্টুন এঁকে তা তাঁর (ট্রাম্প) নামে পাঠানো শুরু করেছেন। ছবি: প্রথম আলোকেউ যদি ট্রাম্পের ওপর আরও নাখোশ হন ও তাঁর গায়ে মূত্রত্যাগ করে নিজের ক্রোধ প্রকাশ করতে চান, তার ব্যবস্থাও আছে। তবে সে জন্য পকেট থেকে খসাতে হবে ৩০০ ডলার। রাস্তাঘাটে মূত্রত্যাগ যুক্তরাষ্ট্রে আইনত দণ্ডনীয়। কালান সে দণ্ড নিজের ঘাড়ে নিতে প্রস্তুত। সে জন্য আগ্রহী পথচারীর খেসারতের পরিমাণ একটু বেশি। কালান এর মধ্যে এই অপরাধে বার তিনেক গ্রেপ্তার হয়েছেন।

ট্রাম্প বিরোধী আরেক শিল্পীর নাম বিশ্বজিৎ সিং। নামজাদা আঁকিয়ে এই শিখ ধর্মাবলম্বী অবশ্য প্রতিবাদের কিছুটা নরম পথ বেছে নিয়েছেন। তিনি ট্রাম্পের নানা ব্যঙ্গ কার্টুন এঁকে তা ট্রাম্পের নামে পাঠানো শুরু করেছেন। প্রতিটিতে রয়েছে ট্রাম্পের জন্য একটি বার্তা। যেমন, সাম্প্রতিক পোস্টকার্ডে এক স্কুলবালকের মন্তব্য রয়েছে। সে ট্রাম্পকে লিখছে, ‘আমার বাবা তোমাকে পছন্দ করে, মা করে না। আমি নিজে খুব ঝামেলায় আছি, কারণ তোমার কথাবার্তা আমার স্কুলের কিছু কিছু বোকা ছেলের মতো শোনায়।’

এখানেই থামেননি কালান। বলেছেন, অন্যরাও তার আঁকা কার্টুন ট্রাম্পকে পাঠাতে পারেন। এ জন্য তিনি Sikhtoons. com এই নামে একটি ওয়েবসাইট করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email